আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

মনোহরগঞ্জ বাজারের বেহাল অবস্থা সামান্য বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা

বিশেষ প্রতিবেধন: বছরে লাখ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় করা হলেও উন্নয়ন হয় না উপজেলা সদরের মনোহরগঞ্জ বাজারের সামান্য বৃষ্টি হলেই হাঁটু সমান পানিতে ভরে যায় গলিগুলো এতে বাজার ব্যবসায়ী বাজারে আসা লোকজন পথচারীসহ সাধারণ জনগণকে পোহাতে হয় চরম ভোগান্তি


সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, মনোহরগঞ্জ বাজারের অধিকাংশ গলি সামান্য বৃষ্টি হলেই পানি জমে পুকুরে পরিণত হয়। ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় পানি নামতে পারে না সময়মতো। যার দরুন পানি নেমে গেলে একাকার হয়ে যায় কাদায়।


স্কুল-কলেজ মাদ্রাসার ছাত্র/ছাত্রীদের পোহাতে হয় চরম ভোগান্তি। উপজেলা সদরের মনোহরগঞ্জ বাজারের প্রধান গলি বৃষ্টি হলেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। অথছ প্রতিদিন বাজারের উপর দিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার,উপজেলা প্রকৌশলীসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা স্কুল কলেজ মাদ্রাসার ছাত্র/ছাত্রীরা চলাচল করছে।

পানি আর কাদা মাটিতে চলতে গিয়ে অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে বিড়ম্বনায় পড়তে হয় অনেককে। কিন্তু তারপরও বাজার উন্নয়নের কোন খবর নেই। বৃষ্টির পরে গলিগুলোতে পানি জমে তার সাথে ময়লা আবর্জনা একসাথে হয়ে পরিবেশ দূষিত হয়ে বিভিন্ন রোগবালাই ছড়িয়ে পড়ছে এলাকায়।

বাজারের ব্যবসায়ীরা আমাদের লাকসামকে জানান, গত ডিসেম্বরে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে বড় দুই দলের দুইজন নেতাকে নির্বাচিত করা হয় কিন্তু নির্বাচিত কমিটির মাস অতিবাহিত হলেও বাজার উন্নয়নের কোন খবর নেই। তাই তারা আক্ষেপ করে বলেন, আমাদের বাজার ব্যবসায়ীদের দুঃখ আর যাবে না।

ব্যাপারে বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সভাপতি মোস্তফা কামালের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি আমাদের লাকসামকে জানান, শীঘ্রই বাজার উন্নয়নের কাজ শুরু করা হবে। বিশেষ সূত্রে জানা যায়, মনোহরগঞ্জ বাজার উন্নয়নের জন্য সরকার ৪২ লাখ টাকা বরাদ্দ দিচ্ছে