আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

নাথেরপেটুয়ায় ১ মেয়েকে ধর্ষন ॥ এলাকাতে তোলপাড়

সামছুল আলম সাদ্দাম: [মঙ্গলবার, ০৫ জুন ০১২] রক্ষক যদি ভক্ষক হয়ে যায় তাহলে সমাজ ব্যবস্থার ভবিষ্যত কি? জনমনে এমন প্রশ্ন নিয়ে নাথেরপেটুয়া এলাকায় চলছে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড়।
জানা যায় মনোহরগঞ্জ উপজেলার নাথেরপেটুয়া ষ্টেশনে গত ৩১ মে রাতে সৎ মায়ের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সোনাইমুড়ি বাজারের কাাঁচমাল ব্যবসায়ী নাফিজুদ্দিন এর মেয়ে আয়েশা বেগম (১৭) রাগ করে বাড়ী থেকে বের হয়ে নাথেরপেটুয়া রেল ষ্টেশনে একা একা বসে থাকে এমতাবস্থায় পার্শ্ববর্তী বিনয়ঘর গ্রামের কেম হাজী বাড়ীর সামসুল হক (৪৫) মেয়েটিকে রাতে আশ্রয় দেয়ার নামে নিজের বাড়িতে নিয়ে যায় সামান্য খাওয়া খাওয়ায়ে নিজের ঘরে শোয়ায়ে রাখে গভীর রাতে রক্ষক সামসুল হক মেয়েটিকে ঘুমের ঘোরে ধরে জোরপূর্বক বাড়ীর পাশের একটি ক্ষেতে নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষন করে ৫০ টাকা দিয়ে পুনরায় নাথেরপেটুয়া রেল ষ্টেশনে পাঠিয়ে দেয় মেয়েটি ষ্টেশনে এসে হাউমাউ করে কাঁদতে থাকলে নৈশ প্রহরী সামা মেয়েটির কান্না শুনে এগিয়ে গিয়ে বিষয়টি জেনে বাজারের দুজন ব্যবসায়ী বাবুল হাজী আবদুল মন্নানকে জানালে তারা বিস্তারিত বিষয়টি শুনে চেয়ারম্যান তাহের কোমস্পানীর কাছে মেয়েটিকে হেফাজতে রাখে এরপর থেকে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য জোর তদবির চলছে বিষয়টি নিয়ে চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি বিষয়টি এখন নাথে
রপেটুয়ার আশপাশ এলাকায় টক অব দি এলাকায় পরিনত হয়েছে