আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

আজগরায় অগ্নিকান্ড বাড়িঘর পুড়ে ছাঁই, বাড়িতে বইছে শোকের ছায়া


তানভীর হাছান: [রোববার, ০৩ জুন ০১২] শনিবার সকাল ৯টায় লাকসাম উপজেলার আজগরা গ্রামে একটি বাড়িতে আগুুন লেগে ছাঁই হয়ে গেছে দুইটি ঘর।..
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে আজগরা গ্রামের মৃত জাহাঙ্গীর আলমের ঘরে বৈদ্যুতিক সর্ট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। এলাকাবাসী শত চেষ্টা করেও আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি। অবশেষে পুড়ে কয়লা হয়ে গেছে মৃত জাহাঙ্গীর আলমের একটি থাকার ঘর ও একটি রান্নার ঘর। এতে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, ঘর থেকে একটি জিনিসও সরাতে পারেনি পরিবারের লোকজন । সব কিছু হারিয়ে এখন নিঃস্ব পরিবারটি। তাদের পরনের কাপড় ছাড়া কিছুই সরাতে পারেনি। উল্লেখ্য যে, ২০১০ সালে  ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা জাহাঙ্গীর আলমের এস,এস,সি পরীক্ষা দেয়া একমাত্র মেয়ে জেসমিন আক্তার। ফল প্রকাশের এক সপ্তাহ আগে মারা যায় জেসমিন। পরীক্ষায় সে A- পায়। এর তিন মাস পর মারা যায় জাহাঙ্গীর আলম । বর্তমানে জাহাঙ্গীরের পরিবারে রয়েছে তার স্ত্রী ও তিন সন্তান । জাহাঙ্গীরের স্ত্রী শাহেনা বেগম জানান, স্বামী ও একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে অনেক ব্যাথা বুকে নিয়ে  তিন সন্তানকে নিয়ে বেঁচে আছেন তিনি।  তার একমাত্র অবলম্বন ছিল একটি মাত্র ঘর । তিনি তাও হারলেন  । এদিকে দুপুরে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শাহগীর আলম। তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটিকে সাহায্যের আশ্বাস দেন। এছাড়াও পরিবারটিকে সহযোগিতা করার জন্য এলাকার সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন আজগরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ রুহুল আমিন সহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ।