আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবীতে কুমিল্লার গন অনশনে বেগম রাবেয়া চৌধুরী "গণতন্ত্র আজ কাশিমপুর কারাগারে অবরুদ্ধ"

সামছুল আলম সাদ্দাম: [সোমবার, ২১ মে ০১২] বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভানেত্রী বেগম রাবেয়া চৌধুরী বলেছেন রক্তার্জিত গণতন্ত্র আজ শেখ হাসিনার রোষানলে পড়ে কাশিমপুর কারাগারে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।..
লীগ দেশে অঘোষিত বাকশালী শাসন জনগনের উপর চাপিয়ে দিয়েছে। এ অবস্থা আর চলতে দেয়া যায়না। বিএনপির পিঠ দেয়ালে ঠেকে গিয়েছে। অবিলম্বে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কুমিল্লার নন্দিত জননেতা বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার এবং ড. খন্দকার মোশারফ হোসেনসহ ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তি না দিলে শেখ হাসিনা বাংলাদেশ থেকে পালানোর পথ পাবে না। বেগম রাবেয়া চৌধুরী ২০ মে কুমিল্লা টাউন হল ময়দানের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে কুমিল্লা দক্ষিন জেলা বিএনপির গণঅনশন কর্মসূচীতে নেতৃত্বদানকালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ১৮ দলীয় জোটের প্রধান শরীক জামায়াতে ইসলামীর কুমিল্লা মহানগরীর নায়েবে আমীর কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া, মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন ভিপি, প্রচার সম্পাদক মোস্তফা জামান, জেলা যুবদল সভাপতি আমিরুজ্জামান, জেলা জাসাসের আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম মিলন সহ কুমিল্লা জেলা ও মহানগর বিএনপি ও ১৮ দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ।
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কুমিল্লার নন্দিত জননেতা বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার এবং ড. খন্দকার মোশারফ হোসেনসহ ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবীতে আয়োজিত জেলা বিএনপির গন অনশনে লাকসাম উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক ইয়াছিন আলী, যুব-বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মইনুল হক মজুমদার মিঠু, লাকসাম উপজেলা জাসাস সাধারন সম্পাদক মনির আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মোশারফ হোসেন মশু, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল হক মনু, কৃষক দলের সভাপতি মনিরুজ্জামান, সাধারন সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল বাশার, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মাসুদ রানা বেলাল, পৌর ছাত্রদল সভাপতি ওমর ফারুক রাজু, সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার মামুন, ছাত্রদল নেতা বেলাল, ফয়সালসহ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নেতাকর্মী যোগ দিয়েছেন।