আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

ওরা অন্ধকারে আলোর প্রদীপ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট: [সোমবার, ২১ মে ০১২] লাকসাম উপজেলার ৪ হাজার মানুষের গ্রাম মনপালে কোনো স্কুল নেই। বিদ্যুৎ এসেছে অল্প কয়েকদিন হলো। গ্রামের এক ইঞ্চি রাস্তায়ও পিচ পড়েনি।..
কৃষি গ্রামের প্রধান আয়ের উৎস। লেখা পড়ার হার ৩০ ভাগের নিচে। এ গ্রামে সম্প্রতি আলোর প্রদীপ জ্বলেছে। গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে গ্রামের কয়েকজন শিক্ষার্থী। এ নিয়ে গ্রামে এখন উৎসবের আমেজ। কুমিল্লা জিলা স্কুল থেকে তানভীর ইসলাম জয় ও নাহিদুল ইসলাম, কুমিল্লা মডার্ন স্কুল থেকে রাকীব মজুমদার প্রিয়ম, নাঙ্গলকোট কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে খালেদ মোশারফ গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে। জিপিএ-৫ পেয়েছে লাকসামের বারাকাতবাগ দাখিল মাদরাসা থেকে আবদুর রহমান। গত বছর মনোহরগঞ্জের খিলা আজিজুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে সাদ্দাম হোসেন।  ৬ জন শিক্ষার্থীকে গত ১৯শে মে সংবর্ধনা দিয়েছে মনপাল আল আমিন ক্লাব।

অনুষ্ঠানে কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন কুমিল্লার সভাপতি খায়রুল আহসান মানিক, সাপ্তাহিক আমোদ ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক বাকীন রাব্বী, লাকসাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি তবারক উল্যাহ কায়েস, প্রাইম লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানির প্রকল্প পরিচালক মোস্তফা জামাল মিলন। সাবেক ইউপি সদস্য কায়েম উদ্দিন মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক আনোয়ার হোসাইন, সেলিম রেজা মুন্সী, কাজী শামীম, নাসির উদ্দিন চৌধুরী, আবু মুছা, তারিকুল ইসলাম শিবলী, লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ সহকারী মেডিকেল অফিসার ইসমাঈল হোসেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান, মনপাল গ্রামের সমাজসেবক ওবায়েদুল হক মজুমদার। অনুষ্ঠান তত্ত্বাবধান করেন, আল আমিন ক্লাবের সভাপতি অহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন।