আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লোকবল সংকটে খুঁড়িয়ে চলছে কুমিল্লা মৎস্য বিভাগ ১ম শ্রেণীর ৩০ পদের ১৮টি শূন্য

অতিথি সাংবাদিক: [মঙ্গলবার, ১৫ মে ০১২] চরম লোকবল সংকট, এর মধ্যে প্রশিক্ষণ ভ্রমণে বিদেশ গমন, স্পেশাল প্রোগ্রামে জেলার বাইরে অবস্থান মেটার্নিটি ছুটিসহ বিভিন্ন কারণে ছুটি- ইত্যাদি কারণে রীতিমত খুঁড়িয়ে চলছে কুমিল্লা মৎস্য বিভাগ..
জেলায় প্রথম শ্রেণীর পদমর্যাদার সহকারি পরিচালক, মৎস্য জরীপ কর্মকর্তা, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, খামার ব্যবস্থাপক প্রকল্প এক্সটেনশন কর্মকর্তাসহ ৩০টি পদের মধ্যে ১৮টি পদ- দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে এছাড়াও শূন্য রয়েছে ২য় ৩য় শ্রেণীর ৫টি পদ
কুমিল্লা মহানগরীর জাঙ্গালিয়া এলাকায় অবস্থিত জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা মৎস্য বিভাগে সহকারি পরিচালকের ১টি মৎস্য জরীপ কর্মকর্তার ১টিসহ ২টি পদের মধ্যে ২টি- শূন্য রয়েছে এছাড়া ১৬টি উপজেলায় ১৬ জন উপজেলা/সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে ৮টি উপজেলায় ওই পদ শূন্য রয়েছে এবং এরই মাঝে জন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রশিক্ষণ ভ্রমণে মালয়েশিয়ায় থাকায় কিছুদিন জন দিয়ে চলছিল ১৬ উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন অপরদিকে জেলার ৬টি মৎস্য খামারে জন খামার ব্যবস্থাপকের ৫টি পদ- শূন্য প্রথম শ্রেণীর পদমর্যাদার গুরুত্বপূর্ণ ওই ২৪টি পদের মধ্যে ১৫ জন কর্মকর্তার শূন্য পদ চলছে জন কর্মকর্তার অতিরিক্ত দায়িত্ব (ভারপ্রাপ্ত) পালনের মাধ্যমে এছাড়া জেলায় প্রকল্প এক্সটেনশন কর্মকর্তার ৬টি পদের মধ্যে ৩টি পদ শূন্য এবং ওই ৩টি পদের একজন মেটার্নিটি ছুটিতে থাকায় জন দিয়ে চলছে জন কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন জানা যায়, জেলার জন সহকারি মৎস্য কর্মকর্তা জাটকার স্পেশাল প্রোগ্রামে পিরোজপুর, পটুয়াখালী ভোলায় অবস্থান করছেন অপরদিকে ২য় শ্রেণীর ২টি ৩য় শ্রেণীর ৩টি পদ শূন্য রয়েছে সূত্র জানায়, একজন কর্মকর্তা দূরবর্তী একাধিক উপজেলাসহ শূন্য পদের থেকে ৪টি পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করলেও তারা অতিরিক্ত কোন ভাতা সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন না ফলে শূন্য ওইসব পদে যথাযথ দায়িত্ব পালন বিঘিœ হওয়ায় সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোয় মৎস্য বিভাগের কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়ছে এবং জনগণও সরকারি বিভাগের প্রত্যাশিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার ৮টি খামার ব্যবস্থাপকের ৫টিসহ ওই ১৩টি শূন্য পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদানের ক্ষেত্রে অনিয়ম দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে এক্ষেত্রে সিনিয়র কর্মকর্তাদের ডিঙ্গিয়ে অনিয়মের মাধ্যমে জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কাছের লোক বলে পরিচিত সদর দক্ষিণ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল হোসেনকে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করা হয় ইতিপূর্বে তার আপন ছোট ভাই চান্দিনা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এবং দাউদকান্দি উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা চান্দিনা মৎস্য খামারের অতিরিক্তসহ ৩টি পদে দায়িত্ব পালনকারী বেলাল হোসেন প্রশিক্ষণ ভ্রমণে মালয়েশিয়া গমন করেন এসময় জেলা কর্মকর্তার আশির্বাদপুষ্ট ইকবাল হোসেন ছোট ভাইয়ের ওই ৩টি পদের দায়িত্বসহ প্রথম শ্রেণীর আরো ৪টি পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করেন নিয়ে মৎস্য বিভাগে চাপা ক্ষোভ মুখরোচক গুঞ্জন শোনা যায়
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সৈয়দা শিরিন কুলসুমা খাতুন বলেন, লোকবলের চরম সংকটের ফলে একজন কর্মকর্তাকে অতিরিক্ত একাধিক দায়িত্ব প্রদান করতে হচ্ছে এক্ষেত্রে অনিয়মের আশ্রয় নেয়ার বিষয়টি সঠিক নয় জেলার তিতাস, মেঘনা মনোহরগঞ্জ উপজেলার আয়ন-ব্যয়ন দায়িত্ব আমাকে পালন করতে হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, পদগুলো পূরণের বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট একাধিকবার লিখিত মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে, পদগুলো পূরণ হলে সমস্যা থাকবে না বলেও তিনি জানান

আতাউর রহমান
নিউজবিডি