আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

নাঙ্গলকোটের মানিকমুড়া-মান্দ্রা-বাইয়ারা সড়ক যেন মরণফাঁদ!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট: [বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ০১২] নাঙ্গলকোটের মানিকমুড়া-মান্দ্রা-বাইয়ারা সড়কের বিভিন্ন স্থানে খানা খন্দ সৃষ্টি হয়েছে। মানিকমুড়া থেকে মান্দ্রা বাজার পর্যন্ত সড়ক ফেটে যেন মরণফাঁদে পরিণিত হয়েছে।..
দীর্ঘ এলাকাজুড়ে সড়কের পিচ উঠে যাওয়ায়  দিন দিন সড়কটি যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে যাচ্ছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নাঙ্গলকোট উপজেলার মানিকমুড়া-মান্দ্রা-বাইয়ারা সড়কের বাইয়ারা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা। নাঙ্গলকোট মনোগহরগঞ্জ এই দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী হওয়ায় ওই সড়কে প্রতিদিন শতশত যানবাহন চলাচল করে। কিন্তু দীর্ঘ বছর ধরে সড়কটি সংস্কার না হওয়ায় দিন দিন যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে যাচ্ছে। নাথেরপেটুয়া বাজার পার হলেই সড়কের অধিকাংশ স্থানে ফাটাল। মানিকমুড়া, গোহারুয়া,মান্দ্রাসহ সড়কে বিভিন্ন স্থানে তৈরী হয়েছে বড় বড় গর্ত যেন ছোট ছোট ডোবায় পরিরত হয়েছে। মানিকমুড়া   গোহারুয়া, মান্দ্রায় পিচ উঠে সড়কে ধুলা উড়ছে। সড়কের বেহাল দশার কারনে মানুষ  অত্যন্ত জীবন ঝঁকি নিয়ে ওই পথে পাড়ি দিচ্ছে। ফলে প্রতিনিয়তই সড়কে দূর্ঘটনা বেড়ে চলছে।
গোহারুয়া গ্রামের আরিফুর রহমান বলেন, রাস্তাটি সংস্কার না হওয়া প্রতিদিন হাজার হাজার লোক জীবন ঝুঁকি নিয়ে পথে চলাফেরা করে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সড়কটি মেরামত করা একান্ত প্রয়োজন।
একই গ্রামের মাসুদ রানা জানান, সড়কটিতে যাতায়াতকালে প্রতিনিয়তই দূর্ঘটনা বেড়ে চলছে তবে বিকল্প রাস্তা না থাকায় বাধ্য হয়ে মানুষ রাস্তায় চলাচল করে। সড়কটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য .. মুস্তফা কামাল এর নিকট আমারা এলাকাবাসী অনুরোধ করেছি।
সিএনজি চালক হবিবুর রহমান বলেন, সড়কে অত্যন্ত ঝঁকি নিয়ে গাড়ি চালাতে হয়। মাঝে মাঝে রাস্তার মাঝখানে বড় বড় গর্তের মধ্যে পড়ে গাড়ি আটকে যায়।
জোড্ডা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলী আক্কাছ জানান, রাস্তাটির খবুই নাজুক। ইউনিয়ন পরিষদের বরাদ্ধ কম তাই আমরা ইচ্ছে করলেও সড়কটি মেরামত করতে পারিনা। জরুরী ভিত্তিতে সড়কটি মেরামত প্রয়োজন।
নাঙ্গলকোট  উপজেলা  প্রকৌশলী অফিসের নশকার উপ-সহকারী প্রকৌশলী কামাল হোসেন বলেন, নাঙ্গলকোটে ১১টি সড়কের অবস্থা নাজুক। এরমধ্যে মানিকমুড়া-মান্দ্রা-বাইয়ারা সড়কের যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে যাচ্ছে। সড়কটি সংস্কারের জন্য ২৬ নামে একটি প্রকল্পের অধীনে রাফ নেপ সার্ভেয় করা হয়েছে।
নাঙ্গলকোট উপজেলা প্রকৌশলী  আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, রাস্তাটি কত কিলোমিটার কত বছর ধরে সংস্কার হয়না তা তিনি জানেনা। তিনি ডায়েরী না দেখে কোন কিছু বলতে পারবেন  না। অফিসে অছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনের লাইটি কেটে দেন। এরপর একাধিক বার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।




বিজ্ঞাপন মুক্ত এ ব্লগের প্রতিটি খবরে রয়েছে এক ঝাঁক মেধাবী তরুণের অক্লান্ত পরিশ্রম ও সর্বোচ্চ প্রযুক্তির ব্যবহার। তাই আমাদের খবর আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে আমাদেরকে উৎসাহিত করুন।