আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের জন্য কঠোর আন্দোলন করতে প্রস্তুত তরুণরা

লাকসামকে জেলার দাবি দিন দিন গনআন্দোলনে রুপ নিচ্ছে স্বাধীনতার পর থেকেই দাবি আমাদের চল্লিশ বছর পার হয়ে যাবার পরও লাকসাম জেলা হিসেবে বাস্তবায়িত হয়নি এটি আমাদের জন্য দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছুই নয়।..
লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের দাবির গড়াপত্তন করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সহকর্মী লাকসামের সাবেক এমপি মরহুম আলহাজ্ব জালাল আহমেদ উনার নেতৃতে ১৯৭২ সালে সর্ব প্রথম লাকসামকে জেলা হিসেবে ঘোষণা করার জন্য স্মারকলিপি প্রধান করা হয় তখন থেকেই লাকসামকে জেলা করার দাবি লাকসামের সাধারন মানুষের মনে অনুধাবিত হয় মরহুম আলহাজ্ব জালাল আহমেদের মৃত্যুর পর লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের আন্দোলন গতি মন্থর হওয়ার আশংকা থাকলেও উনার সুযোগ্য পুত্র লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক শিব্বীর আহমেদের নেতৃতে আন্দোলন এখন গনআন্দোলনে রুপ নিয়েছে এরই মধ্যে বিভিন্ন সময়ে সরকার সরকারের অনেক মন্ত্রী এমপিকে স্মারকলিপির মাধ্যমে লাকসামকে জেলা করার দাবি সহ লাকসাম জেলা বাস্তবায়নের রুপ রেখা তুলে ধরেছেন শিব্বীর আহমেদ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৬৬তম অধিবেশনে যোগদিতে এলে শিব্বীর আহমেদ লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন সংক্রান্ত এক স্মারকলিপি প্রদান করেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বিষয়টি দেখবেন বলে আশ্বস্ত করেন

শিব্বীর আহমেদ প্রবাসে থাকলেও তার মন সব সময় লাকসাম দেশের উন্নয়নের কথাই চিন্তা করে এমন একজন মহান গুণী মানুষের সাথে লাকসামকে জেলা বাস্তবায়ন করার দাবিতে আমরা তরুনরা কাজ করতে পারবো এটা আমি শুধু কল্পনাই করেছি আমার এই কল্পনাই বাস্তব হল শিব্বীর ভাইয়ের নেতৃতে লাকসামের তরুণরাআর কোন দাবি নাই, লাকসামকে জেলা চাইএই স্লোগান নিয়ে রাজপথে আন্দোলন করছে অনেক যুগ পেরিয়ে গেছে, এখনও লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন হয়নি আর অপেক্ষা নয় লাকসামের তরুন সমাজ এবার কঠোর আন্দোলন করতে চায় কবি বলেছেন, এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার শ্রেষ্ঠ সময় তার শিব্বীর ভাইকে কাছে না পেলেও আমরা তার নির্দেশের অপেক্ষায় আছি লাকসামকে জেলার দাবিতে প্রয়োজনে আমরা লাকসাম রেলওয়ে জংশন অবোরোধ করবো, সড়ক পথ বন্ধ করে দেব, লাকসামে হরতাল সহ লাগাতার অনশন ধর্মঘট পালন করবো লাকসামকে জেলা বাস্তবায়ন করেই তারপর লাকসামের তরুন সমাজ ঘরে ফিরবে

এখন আমরা ফেসবুক, ব্লগের মাধ্যমে লাকসামকে সারা বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে চেষ্টা করে যাচ্ছি আর এর অনুপ্রেরণায় রয়েছে মুজিবুর রহমান দুলাল, ফারুক আল শারাহ, সাইফ খান, চন্দন সাহার মত জাতীয় দৈনিকের সাংবাদিক গন আর পলাশ, সুমন, জামিদের মত মেধাবী পরিশ্রমী সহপাঠী পাওয়াও সহজ কথা নয় আমরা তরুনরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করেযাব সময় বলে দেবে আমরা কতটা সফল হতে পেরেছি আমরা শুধু চাই দিক নির্দেশনা, অনুপ্রেরণা আর অনেক অনেক দোয়া


সম্পাদক
আমাদের লাকসাম