আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসামে আশ্রয় কেন্দ্রের নামে কাবিখার ২৫২ টন চাউল

এমএসআই জসিম: [শুক্রবার, ০২ মার্চ ০১] লাকসামের কৃষ্ণপুরে আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণে সরকারি কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচী কাবিখার ২৫২ টন চাউল প্রদান আশ্রয় কেন্দ্র বন্ধের দাবীতে এলাকাবাসী ক্ষোভে ফুসে উঠেছে এবং সরকারের মন্ত্রী এমপিসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছে।..
এলাকাবাসী জানান, লাকসাম-নোয়াখালী সড়কের পাশে কৃষ্ণপুর মৌজার একর ৭৭ ডিং ভূমি সড়ক বিভাগ ইটভাটা নির্মানের জন্য এলাকাবাসী হতে একওয়ার করে নেয়। গত কয়েক বছর যাবত উক্ত ভূমি সড়ক বিভাগের নামে রয়েছে। কিন্তু কৃষ্ণপুর গ্রামের একটি ওয়াজ মাহফিলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ঘোষনা দেন সড়ক বিভাগের অব্যবহৃত জায়গায় আশ্রয়কেন্দ্র হবে। ইতিমধ্যে উক্ত ভূমিতে আশ্রয় কেন্দ্রের নামে সরকার হতে কাবিখা প্রকল্পের মাধ্যমে ২৫১.৮০০ টন চাউল প্রদান মাটি ভরাটের কাজ চলছে। বরাদ্দকৃত চাউলের মূল্য প্রায় ৪৫ লাখ টাকা। কৃষ্ণপুর গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য শাহজাহান মিয়াজী অভিযোগ করে বলেন এলাকাবাসী হতে সড়ক বিভাগ ইটভাটা নির্মানের জন্য ভূমি একওয়ার করে নেয় এবং সড়ক বিভাগ আশ্রয় কেন্দ্রের নামে এখনো দেয়নি। কাবিখার অধিকাংশ টাকা আতসাত করার জন্যই প্রকল্প বাস্তবায়নের পায়তারা করা হচ্ছে বলে জানান। ব্যাপারে কাবিখা প্রকল্পের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বলেন সরকারের অনুমতি নির্দেশনা মোতাবেক আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণে কাবিখা প্রকল্পের মাধ্যমে একর ৬২ শতক ভূমি ভরাটের কাজ চলছে। এখানে কোন রকম দুর্নীতি কিংবা আতসাতের ব্যবস্থা নেই। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এলাকার গরীব নিরীহ মানুষ উপকৃত হবে বলে জানান