আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

ভারত হয়ে গেলো দর্শক, টাইগাররা খেলবে ফাইনালে


বড়ধরনের ধ্বংসস্তুপ থেকে বাঁচানো দুই নায়ক।
পরে তাদের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করে দেন রিয়াদ ও নাসির
আবু পলাশ লাকসাম থেকেঃ [বুধবার, ২১ মার্চ ২০১২] এশিয়া কাপের গূরত্বপূর্ণ ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে উইকেটে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হটিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে সাকিব-তামিমের বাংলাদেশ৪০ রানেই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যায় টাইগাররাসাকিব ৫৬ও তামিম ৫৯ রানে সেনানায়েকের বলে আউট হওয়ার পূর্বে পরস্পর ৭৬ রানের জুটি গড়েন এরপর ১৩৫ রানে উইকেট হারিয়ে ফেলে মুশফিকবাহিনীপরে নাসির (৬১ বলে ৩৬) রিয়াদের(৩৩ বলে ৩২) বিচক্ষণতায় অনায়াসে ম্যাচ জিতে নেয় স্বাগতিকরা উল্লেখ্য ২০ মার্চ ছিলো তামিম ইকবালের ২৪তম জন্মদিন,
সাকিব আল হাসান উইকেট ৫৬ (৪৬ বল)নিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান। এশিয়া কাপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয়ের জন্য বাংলাদেশকে ২১২ রান করতে হবে ৪০ ওভার থেকে আগে ব্যাট করতে নেমে ৪৯. ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৩২ রান তোলে লঙ্কানরা।..
তবে বৃষ্টির কারণে পুরো ৫০ ওভার খেলতে পারেনি বাংলাদেশ। এর আগে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই নাজমুল হোসেনের  বোলিং তোপে পড়ে শ্রীলঙ্কা। দলের ৩২ রানেই তিন উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়তে হয় তাদের। ১৯ রানে অধিনায়কের উইকেটটি হারায় লঙ্কানরা। চতুর্থ ওভারের শেষ বলে জয়াবর্ধনের উইকেট ভেঙ্গে দেন পেসার নাজমুল হোসেন। ব্যক্তিগত রানে কুমার সাঙ্গাকারা এক্সটা কভারে নাজিমুদ্দিনের ক্যাচে পরিণত হন। বোলার এবারো নাজমুল হোসেন। ব্যক্তিগত পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয় বলে  তিলকারত্নে দিলশানকে (১৯) বোল্ড করে নিজের তৃতীয় উইকেটটি তুলে নেন নাজমুল
চতুর্থ উইকেটে চামারা কাপুগেদারা লাহিরু থিরিমান্নের ৮৮ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপদ সামলে ওঠে শ্রীলঙ্কা। এই জুটি উইকেটে ২২. ওভার অবিচ্ছিন্ন থেকে ইনিংস মেরামত করেন। ব্যক্তিগত অর্ধশতক থেকে দুই রান দূরে থাকতে রাজ্জাকের বলে থিরিমান্নের (৪৮) উইকেট ভেঙ্গে দেন উইকেট রক্ষক মুশফিকুর রহিম। তবে হাল ছাড়েননি কাপুগেদারা। থারাঙ্গাকে সঙ্গে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ৪৯ রান করে সাকিবের শিকার হন। ৬২ রানে এলবিডব্লু হয়ে সাজঘরে ফেরেন। তবে উপুল থারাঙ্গার দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে দু`শো রানের ঘরে  পেৌছে লঙ্কানরা। দলের ২০৪ রানে শাহাদাতের বলে উইকেটের পেছনে তালুবন্দী হওয়ার আগে ৪৮ রান করেন থারাঙ্গা। তবে এর আগেই পারভেজ মাহারুফ () নুয়ান কুলাসেকারাকে () হারায় শ্রীলঙ্কা। পরবর্তী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে লাসিথ মালিঙ্গা ১০ সুরঙ্গা লাকমাল বিনা রানে ফিরে গেলেও ১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন সুচিত্র সেনানায়েকে
৩২ রানে তিনটি উইকেট নিয়ে সবচেয়ে সফল ছিলেন নাজমুল হোসেন। এছাড়া আব্দুর রাজ্জাক সাকিব আল হাসান প্রত্যেকেই দুটি করে উইকেট নেন। মাশরাফি মতুর্জা শাহাদাত হোসেন  একটি করে উইকেট দখল করেনএই জয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও ছিলেন দর্শক হিসেবে।জয়ের পর তিনি খেলোয়াড়দেরকে শুভেচ্ছা জানান মিষ্টিমুখ করান




লাকসাম মনোহরগঞ্জ নাঙ্গলকোটে ২৪ ঘণ্টার খবরের আপডেট পেতে আমাদের পেজটি লাইক করুন। পেজটি লাইক করতে এখানে ক্লিক করুন। আপনার একটি লাইকই আমাদের অনুপ্রেরণা।
undefined