আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসামকে জেলা ঘোষণার দাবি বাস্তবায়নে সাংবাদিক রাজনীতিবীদসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষদেরকে এগিয়ে আসতে হবেঃ সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় শিব্বীর আহমেদ



মুজিবুর রহমান দুলাল: [সোমবার,০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১]লাকসামকে জেলা ঘোষণার দাবিতে গতকাল রোববার স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁয় লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে কুমিল্লার উপজেলার সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়..
পরিষদের আহবায়ক শিব্বীর আহমেদ এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক লাকসাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মোঃ আবদুল কুদ্দুস, সাধারণ সম্পাদক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান দুলাল (প্রথম আলো), উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব আবদুর রহমান বাদল, বিএনপি নেতা মজিবুল্লাহ তরু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাকির হোসেন, মনোহরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হুমায়ুন কবির মানিক, নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুদ্দিন দুলাল, সাংবাদিক নাসির উদ্দিন চৌধুরী (সমকাল), শহিদুল ইসলাম শাহীন (ময়নামতি), আবদুর রহিম (জাতীয় নিশান), আবদুল মান্নান মজুমদার
সময় উপস্থিত ছিলেন, কামাল হোসেন (নির্বাহী সম্পাদক, লাকসামবার্তা), নুর উদ্দিন জালাল আজাদ (নির্বাহী সম্পাদক, সাপ্তাহিক লাকসাম), জাফর আহমেদ (আজকের জীবন), কুমিল্লা সদর দক্ষিণ প্রেসক্লাবের আরেফিন রুমেল, এমএসআই জসিম (আমার দেশ), সাইফ খান (বাংলাদেশ প্রতিদিন), মনোহরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান (আমাদের সময়), মোঃ আবুল কালাম (নওরোজ, শিরোনাম), চন্দন সাহা (ডেসটিনি), খলিলুর রহমান মজুমদার (বাংলাদেশ সময়), মনির আহমেদ (দিনকাল), আবদুল বাকী মিলন (সময়ের দর্পন), তমিজউদ্দিন চুন্নু (কুমিল্লার আলো), সাখাওয়াত (আলোর দিশারী), সামছুল আলাম রাজন (আমাদের লাকসাম) প্রমুখ
 
মতবিনিময় সভায় পরিষদের আহবায়ক শিব্বীর আহমেদ লাকসামে জেলা ঘোষণার বিভিন্ন যৌক্তিকতা তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশে ইতিপূর্বে অনেক জেলা ঘোষিত হয়েছে। যার ভোটার সংখ্যা বর্তমান লাকসাম জেলা রূপরেখার ভোটার সংখ্যার চাইতে অর্ধেক বা তার চেয়েও কম। উদাহরণ স্বরূপ, মেহেরপুর জেলা মাত্র ৩টি উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে এবং জেলার সর্বমোট ভোটার সংখ্যা লাখ মাত্র। ঝালকাঠি জেলা মাত্র ৪টি উপজেলা নিয়ে গঠিত এবং বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ভোটার তালিকা অনুযায়ী জেলার সর্বমোট ভোটার সংখ্যা সাড়ে লাখ। নড়াইল জেলা মাত্র ৩টি উপজেলা নিয়ে গঠিত এবং বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভোটার তালিকা অনুযায়ী জেলার সর্বমোট ভোটার সংখ্যা সোয়া লাখ মাত্র। বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ২০০৯ সালে প্রণীত ভোটার তালিকা অনুযায়ী এই রকম প্রায় ২৫টি জেলা পাওয়া যাবে যার ভোটার সংখ্যা লাকসাম জেলা রূপরেখার (লাকসাম, মনোহরগঞ্জ, নাঙ্গলকোট সদর দক্ষিণ) ভোটার সংখ্যার চাইতেও কম। সুতরাং অগ্রাধিকারী ভিত্তিতে লাকসাম জেলা হওয়ার দাবি রাখে
তিনি আরো বলেন, লাকসাম উপজেলার সাথে চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলা, নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলা এবং কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম বরুড়া উপজেলা যুক্ত করা গেলে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভোটার তালিকা অনুযায়ী প্রস্তাবিত লাকসাম জিলার সর্বমোট ভোটার সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় সাড়ে ১৪ লাখ এক্ষেত্রে ইতিহাস, ঐতিহ্য, আয়তন জনসংখ্যাসহ সকল দিক বিবেচনায় লাকসাম জিলা বাস্তবায়নের যৌক্তিক দাবিদার

শিব্বীর আহমেদ বলেন,১৯৯১ সালে লাকসাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী জনসভায় লাকসামবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে আপনি লাকসামকে জিলা বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছিলেন এছাড়া ১৯৯৮ সালের ১৭ ডিসেম্বর লাকসাম পৌরসভার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেছেন রাষ্ট্রপতি (তৎকালীন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রী) মোহামমদ জিল্লুর রহমান ওই সময় লাকসামবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে তিনি লাকসামকে জিলা বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছিলেন সভায় লাকসামকে জেলা ঘোষণার দাবিতে তিনি অঞ্চলের সাংবাদিকসহ সকল শ্রেণী-পেশার লোকদের এগিয়ে আসার আহবান জানান