আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

নকল কীটনাশকের ব্যবসায় রমরমা


সামছুল আলাম রাজন: [রোববার,১২ ফেব্রুয়ারি ২০১] ভেজাল নকল কীটনাশকের রমরমা ব্যবসায় সারা দেশে বিশেষ করে দেশের সীমান- অঞ্চলের বাজারগুলোতে ভারতীয় ভেজাল কীটনাশক দেদারছে বিক্রি হচ্ছে একই সাথে দেশের অভ্যন্তরেও বিভিন্ন কীটনাশক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠিত সরকারি বেসরকারি সংস'ারব্র্যান্ডনকল করেও তা অবাধে বিক্রি করছে তুলনামূলকভাবে বাজারে দাম কম থাকায় কৃষকেরাও অবাধে ব্যবহার করছেন এসব ভেজাল পণ্য এতে কৃষকেরা যেমন প্রতারিত হচ্ছেন তেমনি সরকারও বিপুল রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ভেজাল নকল কীটনাশকের অবাধ বিক্রি ব্যবহারে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং এর ফলে ফসল উৎপাদনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা..
অভিযোগ রয়েছে, প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষের চোখ ফাঁকি দিয়ে একটি অসাধু ব্যবসায়ী চক্র বছরের পর বছর ভেজাল নকল কীটনাশকের অবৈধ কারবার চালিয়ে আসছে আবার অনেকে প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিকে ম্যানেজ করেই নকল কীটনাশক তৈরির কারখানা খুলে ব্যবসায় চালাচ্ছেন ইটের গুঁড়া পাথুরে বালি দিয়ে দানাদার কীটনাশক তৈরি করে তরল কীটনাশকের স্প্রে করা হয় পরে বিক্রির জন্য প্যাকেটজাত করে অসাধু ডিলার ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করা হয় তবে নকল কীটনাশক প্রতিরোধে অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে জোরালো কোনো পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না কীটনাশক নিয়ন্ত্রণকারী সংস'ার পক্ষ থেকে
সূত্র জানায়, রাজধানী ঢাকা, বগুড়া, কুমিল্লা, ঝিনাইদহ, নোয়াপাড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন 'ানে নকল কীটনাশক উৎপাদন হচ্ছে এই ভেজাল কীটনাশক সারা দেশেই বিক্রি হচ্ছে তবে বগুড়া, নাটোর, পাবনা, নওগাঁ, দিনাজপুর, রংপুর, চাঁদপুর, যশোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা চুয়াডাঙ্গাসহ দেশের সীমান- অঞ্চলগুলোর কৃষকদের মাঝে বেশি বিক্রি করা হচ্ছে নকল বা ভেজাল চেনার কোনো উপায় নেই সাধারণ কৃষকদের পক্ষে ভেজাল কীটনাশক ব্যবহারে পোকামাকড়-বালাই দমন হচ্ছে না কোনো উপকার পাচ্ছেন না কৃষকেরা কিন' ভেজাল কীটনাশকের বিরুদ্ধে নিয়ন্ত্রণকারী সংস' জোরালো কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না কৃষকদের অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট কৃষি কর্মকর্তাদের জানিয়েও কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না তাদের সাথে যোগসাজশে অসাধু চক্র ব্যবসায় চালিয়ে যাচ্ছে তবে উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং বলছে, ভেজাল কীটনাশক রোধে তৎপর রয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা
জনবহুল দেশের চাহিদা মেটাতে শস্য নিবিড়তা ক্রমেই বাড়ছে এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কীটনাশকের ব্যবহার কৃষকদের প্রশিক্ষণের অপর্যাপ্ততা অদক্ষতার কারণে ফসলে অবাধে ব্যবহার করছে কীটনাশক কৃষকদের সরলতা অসচেতনতার সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ীরা দানা কীটনাশক বাজারজাত করে এমন একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বগুড়া, যশোর কুমিল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায় ভেজাল কীটনাশক উৎপাদন করে বাজারজাত করা হচ্ছে ছাড়া বগুড়ায় আলিফ ডিস্ট্রিবিউশন কোং মাজরাডান ৫জি (কার্বোফুরান) নামে ভেজাল কীটনাশক বিক্রি করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ হাসানুল হক পান্না ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নকল ভেজাল কীটনাশক রোধে কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে কঠোর নজরদারির কারণেই মাঝে মধ্যে ভেজাল কীটনাশক আটক করা হচ্ছে তিনি জানান, আমাদের কাছে অভিযোগ রয়েছে বগুড়ায় মাজরাডান ৫জি নামে কীটনাশক উৎপাদন করে বিক্রি করা হচ্ছে কিন' কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস' নিচ্ছে না কুমিল্লার সীমান- এলাকায় বাসুদান ১০জি (ডায়াজিনন) নামে নকল দানা কীটনাশক অবাধে বিক্রি হচ্ছে
সংশ্লিষ্টরা জানান, গত বছর ১৭ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার লাকসামে কৃষকদের মাঝে সরবরাহের জন্য পরিবহনকালে ট্রাকসহ এক টন ভেজাল নকল কীটনাশক এবং মনিরুল ইসলাম নামে একজনকে আটক করে কৃষি বিভাগ শহরের ব্যাংক রোডে সার কীটনাশকের প্রতিষ্ঠিত ডিলার নারায়ণ পোদ্দারের দোকানের সামনে থেকে কীটনাশক ভর্তি ট্রাকটি আটক করা হয় পরে কীটনাশকসহ মনিরুলকে থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয় কীটনাশকের প্যাকেটের গায়েনির্ঝর ক্রপ কেয়ার লিমিটেডরেজি: নম্বর ৩২৬ লেখা রয়েছে প্যাকেটের গায়ে ইউনাইটেড ফসফরাস কোং-এর রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করা হয় নির্ঝর ক্রপ কেয়ার নামে কোনো কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের কীটনাশক বিক্রি বা উৎপাদনের কোনো লাইসেন্স নেই ২০১০ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জে একটি কারখানা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে নকল ভেজাল কীটনাশক তৈরি করায় ওই কারখানায় ইটের গুঁড়া পাথুরে বালি মিশিয়ে কীটনাশক তৈরি করা হয়
রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার মাতুয়াইলে একটি নকল কারখানায় নামীদামি ব্র্যান্ড এবং ভুয়া কোম্পানির নামে দানাদার কীটনাশক তৈরি করা হতো গত ফেব্রুয়ারি রাতে মাতুয়াইলের দক্ষিণ কেরানীপাড়ার একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সরকারি প্রতিষ্ঠান পদ্মা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ফুরাডান ৫জি, লাইসেন্সধারী ্যাভেন এগ্রো কেমিক্যালস লিমিটেডের বাসুদেব ১০জি, আলফা এগ্রো লিমিটেডে বিস্টারেন ১০জি, হাই কেয়ার এগ্রোভেট লিমিটেডের রেকাফুরান ৫জি ভুয়া কোম্পানি স্বর্ণা বাংলা এগ্রোভেট কোম্পানির কম্পোডিন ১০জি, সবুজবাংলা এগ্রো কেমিক্যালস লিমিটেডের ব্রিডান ৫জি, এভার গ্রিন বাংলাদেশের গ্রিন ফুরান ৫জি বাসুদেব ডায়াজিনন, ফুরাসান, জিডান, কার্বোফুরান ব্র্যান্ডের প্যাকেটজাত বস-াভর্তি প্রায় টন কীটনাশক, বিপুল পরিমাণ খালি প্যাকেট, ড্রাম কেমিক্যাল, প্যাকেট সিলার মেশিন, ডাইসসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয় তবে সময় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ ঘটনায় থানায় একটি এজাহার করা হয়েছে
সূত্র জানায়, ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার সাতগাছি গ্রামের আজাদ রহমান এর আগে নিজ জেলা ঝিনাইদহেও নকল কীটনাশক তৈরি করে বাজারজাত করেছিল তার বিরুদ্ধে মামলা হলে পালিয়ে ঢাকায় এসে আবার নকল কীটনাশক তৈরির কারখানা খোলে একই সাথে ভারতীয় ভেজাল নকল কীটনাশকও সীমান্তের চোরাপথে দেশের অভ্যন্তরে ঢুকছে
উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইংয়ের পেস্টিসাইড রেগুলেশন (পিআরও) অফিসার নাজমুল আহসান নাজিম বলেন, স্বর্ণা বাংলা এগ্রোভেট কোম্পানির, সবুজ বাংলা এগ্রো কেমিক্যালস লিমিটেড এভার গ্রিন বাংলাদেশ নামে কোনো কোম্পানির কীটনাশক উৎপাদন কিংবা বাজারজাতের অনুমোদন (লাইসেন্স) নেই সারা দেশেই একটি অসাধু চক্র সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অসি-ত্বহীন কোম্পানির নামে এবং নামী ব্র্যান্ডের নামে নকল কীটনাশক তৈরি করে কৃষকদের প্রতারিত করে আসছে তাদের প্রতিরোধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে দেশে বর্তমানে অনুমোদিত ১২টি ফরমুলেশন (দানা কীটনাশক উৎপাদন) কারখানা রয়েছে এর বাইরে -৬টি অবৈধ কারখানা রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র দাবি করেছে