আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসামকে জিলা ঘোষনার দাবিতে মনোহরগঞ্জে মানববন্ধন [ভিডিও সহ খবর]

লাকসামবাসীর প্রানের দাবি ‘‘লাকসাম জেলা” বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরবনাঃ মনোহরগঞ্জে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠানে বক্তারা
ফারুক আল শারাহ: [মঙ্গলবার,০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১] নওয়াব ফয়জুন্নেছা চৌধুরাণীর স্মৃতি বিজড়িত লাকসাম একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা আলোর শহর বাকত লাকসাম কত বাত্তিনামে খ্যাত লাকসামকে জেলা বাস্তাবায়নে এখানকার জনগণ স্বাধীনতা পরবর্তী ১৯৭২ সাল থেকে দাবি জানিয়ে আসছে..
লাকসামকে বিভক্ত করে ইতোমধ্যে চারটি উপজেলা করা হয়েছে বৃহত্তর লাকসামবাসীর প্রাণের দাবি লাকসামকে জেলা বাস্তবায়ন করা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরব না গতকাল সোমবার লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের দাবিতে মনোহরগঞ্জে মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তারা দাবি জানান মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে
ওইদিন দুপুরে মনোহরগঞ্জ কলেজ সড়কে লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে মানবন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের আহবায়ক নিউইয়র্ক প্রবাসী প্রখ্যাত সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদ, পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক আবদুল কুদ্দুস, লাকসাম উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল খালেক দয়াল, লাকসাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান দুলাল, মনোহরগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মতিন, গোবিন্দপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোবারক হোসেন ভূঁইয়া, লাকসাম উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব আবদুর রহমান বাদল, বিএনপি নেতা মজিব উল্যাহ তরু, লাকসাম পৌরসভা বিএনপি নেতা জাকির হোসেন, মনোহরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ সদস্য সচিব দেওয়ান জসিম, যুবদল সাধারন সম্পাদক মাসুদুল আলম বাচ্চু, ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক শাহীন জিয়া, বুরপিষ্ঠ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুসলিমুর রহমান
উপস্থিত ছিলেন সাপ্তাহিক সময়ের দর্পণ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ফারুক আল শারাহ, লাকসাম সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন চৌধুরী, লাকসাম উপজেলা জাসাস সাধারণ সম্পাদক মনির আহমদ, মনোহরগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি হুমায়ুন কবির মানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান, খিলা ইউপি লীগের আহবায়ক রুহুল আমিন, অনলাইন পত্রিকা আমাদের লাকসাম সম্পাদক শামছুল আলম রাজন, আনোয়ারা মেডিকেল সেন্টারের পরিচালক নেছার উদ্দিন সুমন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ওমর ফারুক, ছাত্র সংগঠক আবদুল আউয়াল সুমন, রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আবু ইউসুফ, সাংবাদিক শাহ নুরুল আলম, আবদুল বাকী মিলন, আবদুর রহিম প্রমূখ
ঘন্টা ব্যাপী মানব বন্ধনে মনোহরগঞ্জের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশগ্রহণ করে মানববন্ধন শেষে মনোহরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদেক আহমেদ মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে লাকসাম জেলার রূপরেখা যৌক্তিকতা উল্লেখ করে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়

লাকসামকে জিলা ঘোষনার দাবিতে মনোহরগঞ্জে মানববন্ধনে খবর সরাসরি সর্বপ্রথম আমাদের লাকসাম প্রচার করে। আমাদের লাকসামের এক ঝাক তরুন সাংবাদিকের ফলে এটি সম্ভব হয়। দায়িত্বরত সাংবাদিকরা ছিলেন মনোহরগঞ্জে সাংবাদিক ফরহাদ খান বাবু, সাংবাদিক সুমেল খান, নিউজ রুমে ছিলেন সাংবাদিক আবু পলাস ও সাংবাদিক জামিউর রহমান। মানববন্ধনে খবর সরাসরি সর্বপ্রথম প্রচার করায় লাকসাম জেলা বাস্তবায়ন পরিষদের নিউইয়র্ক শাখার আহ্বায়ক নিউইয়র্ক প্রবাসী সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদলাকসাম উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব আবদুর রহমান বাদল আমাদের লাকসামের সম্পাদক সামসুল আলাম রাজনের মাধ্যমে আমাদের লাকসামের সকল সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান।