আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগ! আহ্বায়ক কমিটিতেই এক দশক


গাজীউল হক: [মঙ্গলবার,১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১] আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে ১০ বছর ধরে চলছে কুমিল্লার লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগ দলটির স্থায়ী কোনো কার্যালয় নেই, নেই অস্থায়ী কার্যালয়ের সাইনবোর্ডও।..
অনেকটা সাংসদের একক নেতৃত্বেই পরিচালিত হচ্ছে সংগঠনটি
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০০২ সালে তাজুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয় গত এক দশকেও দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি, যে কারণে দলের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড ঝিমিয়ে পড়েছে দলীয় কোন্দল এবং শৃঙ্খলা না থাকায় লাকসামে বিগত উপজেলা মেয়র নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের ভরাডুবি হয় বলে দলীয় নেতা-কর্মীরা জানিয়েছেন
দলের একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের স্থায়ী কোনো কার্যালয় নেই সাংসদ তাজুল ইসলামের মালিকানাধীন হাউজিং এস্টেট এলাকার একটি টিনশেডের সেমিপাকা ঘরকে দলীয় কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে সেখানে দলের কোনো সাইনবোর্ড নেই আহ্বায়ক কমিটি হওয়ার পর গত এক দশকে দলের কোনো ধরনের বর্ধিত সভা হয়নি পৌরসভা নির্বাচনের সময় দলের অঙ্গসংগঠনের সদস্যদের নিয়ে একটি যৌথ সভা হয়েছিল বছর লাকসামে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীও পালিত হয়নি মূল দলের বেহাল দশার কারণে অঙ্গসংগঠনগুলোর কার্যক্রমও চলছে ঢিমেতালে
বিগত কমিটির একজন নেতা বলেন, দল সাংসদনির্ভর হয়ে পড়েছে দলের ত্যাগী নেতা-কর্মীরা সাংসদের কাছে মূল্যায়ন পাচ্ছেন না হাইব্রিড আওয়ামী লীগ নামধারীরা দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে
জানতে চাইলে দলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তাবারক উল্লাহ বলেন, দলের রাজনীতির জন্য কমিটি হওয়া দরকার তাহলে নতুন নেতৃত্ব তৈরি হবে দলের আহ্বায়ক কমিটি কত সদস্যবিশিষ্ট প্রসঙ্গে তিনি কিছু জানেন না বলে নিশ্চিত করেন
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমান যুগ্ম আহ্বায়ক ইউনুস ভূঁইয়া বলেন, ‘দলের একক নির্বাহী ক্ষমতা সাংসদের কাছে মুহূর্তে দলকে সাজানোর জন্য নতুন কমিটি নতুন নেতৃত্ব চাই
দলীয় নেতাদের অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে কুমিল্লা- (লাকসাম মনোহরগঞ্জ) আসনের সাংসদ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা এখন গ্রাউন্ডওয়ার্ক করছি গ্রাম, ওয়ার্ড ইউনিয়নের কমিটি শেষ হওয়ার পর উপজেলা কমিটি হবে দলীয় কার্যালয়ের সাইনবোর্ড নেই, এটা ঠিককমিটি না হওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এমন অভিযোগ আসতেই পারে দলকে আমি এককভাবে পরিচালনা করি অন্যদের পদ থাকলে তারা থানায় ঝামেলা করত তখন প্রশাসন বিপদে পড়ত, যে কারণে অন্যান্য আসনের চেয়ে আমার সংসদীয় আসনে ঝামেলা কম
কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সফিকুল ইসলাম শিকদার বলেন, কুমিল্লার যেসব উপজেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি নেই, সেখানে সম্মেলনের মাধ্যমে ভোটাভুটি করে নতুন নেতৃত্ব গঠন করার প্রক্রিয়া চলছে জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা বসে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন