আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসাম রেলওয়ের কোটি টাকার যন্ত্রাংশ পড়ে আছে অবহেলায়

আবু পলাশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: [মঙ্গলবার,২৪ জানুয়ারি ২০১] লাকসাম রেলওয়ে জংশনে কতিপয় কর্মকর্তা কর্মচারীর গাফলতি অবহেলার কারণে  রেলওয়ের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি দিন দিন নষ্ট হতে চলেছে। এছাড়াও পতিত এসব মালামাল ছিনতাইকারী ভাঙ্গারী ব্যবসায়ীদের নিকট চুরি করে বিক্রি করারও অভিযোগ পাওয়া যায়।..
জানা যায়-বর্তমান সরকার রেলওয়েকে আধুনিক যুগোপযুগী করতে যোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে আলাদা করে রেল মন্ত্রণালয় গঠন করেন। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিভিন্ন দপ্তরের আধুনিকায়নের পাশাপাশি রেলওয়ে মন্ত্রনালয়কে যোগাযোগ মন্ত্রনালয় থেকে আলাদা করে যুগোপযুগী বহির্বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আধুনিকায়নের লক্ষে দক্ষ অভিজ্ঞ একজন রাজনীতিবিদকে রেল মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়। মন্ত্রনালয়ের শুরুতে লাকসাম-চট্রগ্রাম রেললাইনকে ডাবল লাইনে উন্নীত করণ লাকসাম-চাঁদপুর রেলসড়ক সংস্করণের কাজ হাতে নেয়। কয়েক কোটি টাকা ব্যায়ে রেলওয়ের আধুনিকায়ন করার কাজ হাতে নিলেও রেলওয়ের কিছু অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারীর অবহেলা আর উদাসিনতার কারণে রেলওয়ের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি বে-দখল এবং শতশত কোটি টাকার রেল-লাইন বিভিন্ন যন্ত্রাংশ অবহেলা অযতেœ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। সরকার একদিকে রেলওয়েকে যুগোপযুগি আধুনিকায়নের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে অন্যদিকে রেলওয়ে মন্ত্রণালয়ের অধিনস্ত বিভিন্ন দপ্তরের অসাধু কর্মকর্তা কর্মচারীদের অর্থলোভ অবহেলার কারণে এই যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি করা যাচ্ছে না। জনগণের প্রত্যাশা পূরণের লক্ষে রেল মন্ত্রণালয়কে ঢেলে সাজানো লোকবল সংকট নিরসন দ্রুত প্রয়োজন বলে মনে করছেন অভিজ্ঞ মহল।  এছাড়াও পরিত্যাক্ত রেল-লাইন বিভিন্ন যন্ত্রপাতি পরিত্যাক্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে রেলওয়ের আওতাধীনে এনে রেলওয়ের কোটি কোটি টাকা ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা প্রয়োজন।undefined