আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসাম থেকে চিনকি অস্তানা পর্যন্ত ডাবল লাইন রেলপথ নির্মাণ কাজ শুরু


মাসুদ রানা: [সোমবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১২] ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মীরসরাইয়ের চিনকি অস্তানা থেকে লাকসাম পর্যন্ত ডাবল লাইন রেলপথ নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে সম্প্রতি প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে চিনকি আস্তানা ষ্টেশান থেকে রেলের ডাবললাইন নির্মাণে কর্মরত ম্যাক্স এর পরিদর্শক সুপারভাইজার জাহাঙ্গীর আলম ফারুক আহমদ জানান, রেলওয়ের মহাপরিচালক এবং প্রজেক্ট ডাইরেক্টর কয়েকদিনের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল রুটের চিনকি আস্তানা থেকে লাকসাম পর্যন্ত ডাবল লাইন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলওয়ে উন্নয়নে প্রকল্পের আওতায় ৬১ কিলোমিটার মেইল লাইন ১১ কিলোমিটার লুপ লাইন নির্মাণ করা হবে এতে ব্যয় হবে প্রায় ১৩০১ কোটি ২১ লাখ টাকা।..
জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এবং বাংলাদেশ সরকার যৌথভাবে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে অর্থায়ন করবেলাকসাম-চিনকি আস্তানা ডাবল লাইন প্রকল্পের প্রধান প্রকৌশলী এবং প্রকল্প পরিচালক লিয়াকত আলী  জানান, লাকসাম-চিনকি আস্তানা ডাবল লাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে চীনের ২টি এবং বাংলাদেশের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মোট ৯১০ দিন এই প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ শেষ হবে তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে এই রেলপথে মিটারগেজ (এমজি) ট্রেন চলাচল করবে তবে এই রেলপথে ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ করা যায় ৬১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেলপথের ১১ টি স্টেশনে অত্যাধুনিক সেন্ট্রাল ট্রাফিক কন্ট্রোলিং সিস্টেম থাকবে, যা নিরাপদ ট্রেন চলাচলে সহায়ক হবে এই রেলপথের নির্মাণ কাজ শেষ হলে ট্রেন চলাচলে গতি বৃদ্ধি পাবে এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ট্রেন চলাচলে সময় কম লাগবে  সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত বিভিন্ন রুটে কমিউটার ট্রেন সহ আধুনিক চেয়ারকোচ সংযোজন, শীতাতপ বগি বৃদ্ধি সহ ট্রেন লাইন বৃদ্ধিও নানা ঘোষনা দেন এবং রেলকে গণপরিবহনে রুপান্তরিত করার কথা বলেন

উল্লেখ্য, গত আওয়ামীলীগ সরকারের আমল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের চট্টগ্রাম থেকে ফেনী পর্যন্ত স্থানীয় সর্বসাধারনের জন্য কমিউটার ট্রেন সার্ভিস চালুর প্রতিশ্রুতি ছিল এই ডাবল লাইন নির্মাণ কাজ শেষ হলে এই রুটে দূর্ভোগের শিকার হাজার হাজার নিত্য যাত্রী কমিউটার ট্রেন সার্ভিসের সুবিধা পাবে গতকাল বুধবার চিনকি আস্তানা ষ্টেশানে অপেক্ষামান প্রায় অর্ধশত যাত্রী  কে জানায় আমরা এই ডাবল লাইন নির্মাণকে স্বাগত জানাই এবং শীঘ্রই চট্টগ্রাম থেকে এই রুটে কমিউটার ট্রেন সার্ভিসের চালু করা হোকundefined