আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসাম-চাঁদপুর রেলপথের উন্নয়নে ৭৫ কোটি টাকার কাজের ওয়ার্ক ওয়ার্ডার ফাইলবন্দী

জামিউর রহমান: [শনিবার,২৮ জানুয়ারি ২০১] লাকসাম-চাঁদপুর রেলপথের উন্নয়নে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দৃষ্টির কারণে গত ২০১১ সালে একনেকে ১শ ৮৫ কোটি টাকার প্রকল্পটি পাশ হয়।গত ২০১১ সালে কাজের টেন্ডার হলেও নানা জটিলতা কারণে কাজটি চালু হতে বিলম্ব হয়। কাজটি দু টি ভাগে বিভক্ত করে টেন্ডার প্রক্রিয়া হয়।..
এর মধ্যে ১শ ১০ কোটি টাকার রেলপথ সংস্কারের জন্য ঠিকাদার কোম্পানী ভারতীয় কালিন্দি কোম্পানী কাজটি পায়। কাজ গত ডিসেম্বর অথবা জানুয়ারীর প্রথম সপ্তাহে চালু করার কথা থাকলেও ভারতীয় কালিন্দিয়া কোম্পানী নানা জটিলতার সাইড পরিদর্শন করার কারণে বিলম্ব ঘটে। তারা তাদের লোকবল নিয়োগ করতে অতি বিলম্ব করে। চট্টগ্রাম বিভাগীয় রেলওয়ের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ব্যাপক রিমাইন্ডার দেয়ার ফলে গত সোমবার কালিন্দি কোম্পানীর ম্যানেজিং ডিরেক্টর পিকে সেনগুপ্ত, ..এন কুমিল্লা হামিদুল হক, সাবেক ..এন বর্তমান কালিন্দি কোম্পানীর প্রতিনিধি নুরুল ইসলাম কালিন্দি কোম্পানীর প্রতিনিধি রঞ্জু আহমেদসহ একটি প্রতিনিধি দল কাজের উদ্বোধন করেন। গত মঙ্গলবার থেকে মধুরোড স্টেশন এলাকা নতুন করে ডাবল লাইন স্থাপন করার কাজ স্বরূপ মাটি কাটার কাজ শুরু করা হয়। ছাড়া মধুরোড চাঁদপুরের মধ্যে লুপ লাইনের কাজ শুরু করে। কাজের মধ্যে রয়েছে রেল লাইনের মাটির কাজ পুরাতন ৬০ পাউন্ড রেলপাথ পরিবর্তন করে ৭৫ পাউন্ড রেলপাত প্রতিস্থাপন কাঠের স্লিপার পরিবর্তন করে কংক্রিট স্লিপার স্থাপন করা, রেল লাইনের পাশে ব্রালাষ্ট প্রোটেকশন ওয়াল, ব্যাংক প্রটেকশন ওয়াল নির্মাণ করা হবে। রেলের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের একটি সূত্র জানায়, ১শ ১০ কোটি টাকার কাজ ছাড়া ৭৫ কোটি টাকার দ্বিতীয় প্রকল্প হিসেবে যে টেন্ডার হয়। সেটি ফাইল বন্দি অবস্থায় পড়ে রয়েছে মন্ত্রণালয়ে। সেখান থেকে কাজের ওয়ার্ক ওয়ার্ডার আসলে আগামী ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যে পরবর্তীকাজ লাকসাম-চাঁদপুর রেলপথের যে কয়টি ব্রিজ রয়েছে, সে ব্রিজের কাজ স্টেশন ভবনগুলো রি-মডেলিং আকারে করা হবে। রি-মডেলিং স্টেশন হিসেবে যে যে স্টেশন কাজ হবে, চিতশী মেহের, হাজীগঞ্জ, মধুরোড, শাহতলী চাঁদপুর স্টেশন। চাঁদপুর স্টেশন ভবন করার পূর্বে চাঁদপুরে একটি ডাবল লাইন স্থাপন করা হবে। সেটি কোর্ট স্টেশন এলাকায় অথবা বকুলতলা এলাকায় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সূত্রটি জানিয়েছে। কোর্ট স্টেশন এলাকায় ডাবল লাইন নির্মাণ হলে বর্তমান রেলওয়ে হকার্স মার্কেটের কিছু অংশ ভাঙ্গা পড়তে পারে। বকুল তলা এলাকায় ডাবল লাইন নির্মাণ হলে কোন ক্ষয়ক্ষতির আশংকা নেই
undefined