আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

নাঙ্গলকোটে দাবীকৃত চাঁদা না দেয়ায় প্রাণনাশের হুমকি, সম্পত্তি দখলে বাধা

মাইনুদ্দিন দুলাল: [সোমবার,২৩ জানুয়ারি ২০১২] নাঙ্গলকোটে বিক্রিকৃত সম্পত্তির দাবীকৃত চাঁদা না দেয়ায় প্রাণনাশের হুমকি সহ সম্পত্তি দখলে বাধা দেয়ার অভিযোগে নাঙ্গলকোট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগীরা গতকাল রবিবার নাঙ্গলকোট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন, উপজেলার জোড্ডা ইউপির করপাতি গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে আবদুল বারী এবং একই ইউপির গোড়াময়দান গ্রামের আবুল কাশেম।..

লিখিত বক্তব্যে তারা জানান, আবদুল বারী আর্দ্রা ইউপির চাটিতলা মৌজার  সাবেক ১২২ খতিয়ান, এস, -১২১ খতিয়ানভুক্ত এবং সাবেক ৭১৩ দাগ সাবেক ৭১৬ দাগে ৭৬ শতক সম্পত্তি জোড্ডা ইউপির গোড়াময়দান গ্রামের মৃত- কালু মিয়ার ছেলে আবুল কাশেম এবং তার স্ত্রী রাশেদা আক্তার মায়ার নিকট সাবকবলা দলিলমূলে বিক্রি করে সম্পত্তি বিক্রির কারণে, আর্দ্রা ই্উপির চাটিতলা গ্রামের মৃত- হাজী কালা মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ হোসেন কতিপয় লোকের সহযোগিতায় আবদুল বারীর  নিকট ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে গত কিছুদিন পূর্বে মোহাম্মদ হোসেনের বাড়ির পার্শ্বে দোকানের সামনে মোহাম্মদ হোসেন আবদুল বারীর উপর হামলা করে এবং জোরপূর্বক দোকানে আটকে রাখে আবদুল বারী প্রাণভয়ে তাৎক্ষনিক হাজার টাকা দিয়ে সম্পত্তির ক্রেতা আবুল কাশেমের জিম্মায় বাকী ১৯ হাজার টাকা দেয়ার প্রতিশ্রতিতে রক্ষা পায় বর্তমানে মোহাম্মদ হোসেন তার সঙ্গীয় লোকজন চাঁদার বাকী টাকা আদায়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করছে এবং আবদল বারীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে এদিকে, গত ২০ জানুয়ারী শুক্রবার সম্পত্তির ক্রেতা আবুল কাশেমের ছেলে হাফেজ ইস্রাফিল মোহাম্মদ হোসেনের বাড়ির সামনে দিয়ে তার নানার বাড়ি যাবার পথে মোহাম্মদ হোসেন তাকে দোকানের সামনে আটকে রেখে অশ্লীল গালিগালাজ করতে থাকলে লোকজনের হস্তক্ষেপে সে মারধরের হাত থেকে রক্ষা পায়  মোহাম্মদ হোসেন তার দাবীকৃত চাঁদার অবশিষ্ট টাকা না পেলে সম্পত্তির মালিক আবদুল বারী এবং ক্রেতা আবল কাশেমের পরিবারের লোকজনকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি সহ আবুল কাশেমকে সম্পত্তির দখলে যেতে না দেয়ার হুমকি দিচ্ছে বলেও তারা জানান
undefined