আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেল ট্রেন

[মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারি ২০১] চাঁদপুর থেকে চট্রগ্রামগামী আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি চাঁদপুর-লাকসাম রুটের চিতোষী লাকসাম এর মধ্যবর্তী এলাকায় সহস্রাধিক যাত্রী নিয়ে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে

এসময় ট্রেনে থাকা যাত্রীরা আতংকে ট্রেন থেকে লাফিয়ে পড়ে কমপক্ষে ২০জন আহত হয়েছে এদেরকে লাকসাম স্টেশনের ট্রেনটি পৌঁছার পর রেলের ব্যবস্থাপনায় প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় জানাযায়, ভোরে ফজরের নামাজ শেষে লোকজন হাটতে গিয়ে দেখতে পায় ট্রেন লাইনের নাটবল্টু খুলে বিরাট আকারের ফাঁক সৃষ্টি হয়ে আছে

এলাকার লোকজন অবস্থা দেখতে পেয়ে তাৎক্ষনিক লাল কাপড় নিয়ে রেল লাইনের উপর অবস্থান নেয় মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল ৮টায় ওই..
স্থানে এলে লোকজন লাল কাপড় উড়িয়ে ট্রেনটির গতিরোধ করে ট্রেন থামানোর পর ড্রাইভারকে বিষয়টি জানানো হয়

এতে ট্রেনের সহ¯্রাধিক যাত্রী অল্পের জন্য বড় ধরণের দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় ওই সময় ট্রেনে চাঁদপুরে কর্মরত কর্মকর্তা এপি আইডাব্লিউ ওহিদুর রহমান ছিলেন

তাৎক্ষনিক খবর চাঁদপুর-লাকসামের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তা লিয়াকত আলী মজুমদার সিনিয়র সাব এসিটেন্ট ইঞ্জিনিয়ার ঘটনা জানতে পেরে ওহিদুর রহমানকে নির্দেশ প্রদান করেন তাৎক্ষনিক গাড়ি চালককে লিখিতভাবে অহিদুর রহমান ট্রেন চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিলে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করার পর ট্রেনটি লাকসামের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে

পরে ট্রেনটি সেখান থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে লাকসাম ত্যাগ করে তবে লিয়াকত আলী মজুমদার জানান, যে পরিমান লাইন ফাঁক ছিল তাতে দূর্ঘটনার কোন আশংকা ছিল না

এলাকাবাসী পুরস্কারের আসায় লাল কাপড় উড়িয়ে ট্রেনটি থামিয়ে যাত্রীদের মধ্যে আতংকের সৃষ্টি করে যাত্রীরা ওই সময় আতংকে ট্রেন থেকে লাফিয়ে পড়ে কমপক্ষে ২০জন যাত্রী কম বেশী আহত হয়