আমাদের নিউজ পোর্টাল ভিজিট করুন ...

লাকসামের হুমায়ুন গোলাপগঞ্জ থেকে ৭ মাস পর পিতৃস্নেহে

জয়নাল আবদিন: [বৃহ:স্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১২] গোলাপগঞ্জে একটি  শিশুকে নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছিল পড়ে থানা পুলিশের মাধ্যমে বিষয়টি শেষ হয়েছে ঘটনায় উপজেলা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।..
কৌতুহলী মানুষ শিশুটি দেখতে আশ্রয়দাতার বাড়ীতে ভিড় জমালেও শেষ মূহুর্তে পুলিশি হস্তক্ষেপে পিতার হাতে তুলে দেয়া হয় শিশুকে জানাযায়, প্রায় বছর পূর্বে চট্রগ্রাম মাইজভান্ডারী এলাকায় পীরের মাজার ওরস দেখতে যান গোলাপগঞ্জ উপজেলার শরীফগঞ্জ ইউপির কাদিপুর গ্রামের শামীম রেজাসহ তাদের বন্ধু বান্ধব আসার সময় হুমায়ুন কবির নামের বছরের একটি শিশুকে ভিক্ষা করতে দেখেন পরে  শিশুর অসহায়ত্ব তার অভিভাবক নেই কথা শুনে শিশুর স্ব ইচ্ছায় সফরকারীরা সিলেটে নিয়ে আসেন পরে শামীম রেজার বাড়ীতে শিশুটিকে রাখেন সম্প্রতি শামীম রেজার বাড়ীতে গৃহস্থলীর কাজ করতে আসে হুমায়ুনের এলাকার এক লোক সে এসে হুমায়ুনকে দেখে শিশুটির পিতার কাছে চিঠির মাধ্যমে জানায় হুমায়ুন গোলাপগঞ্জের একটি বাড়ীতে আছে পরে হুমায়ুনের পিতা গতকাল নিজে এসে মঙ্গলবার বিষয়টি গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশকে জানান পুলিশ বিষয়টি শামীম রেজাকে জানালে তারা  হুমায়ুনকে থানায় নিয়ে আসেন পরে হুমায়ুন পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তী দেয় সে শামীম রেজার বাড়ীতে ছিল তার উপর কোন অমানবিক নির্যাতন করা হয়নি সে অভাবের তারনায় চট্রগ্রামে মাইজভান্ডারীতে বাধ্য হয়ে ভিক্ষাবৃত্তিতে নেমে ছিল পরে পুলিশ হুমায়ুনকে তার পিতা জয়নাল আবেদীনের হাতে তুলে দেয় হুমায়ুনের মূল বাড়ী লাকসাম উপজেলার শ্রীলং গ্রামেundefined